বেদকে শ্রুতি বলা হয় কেন ?

QuestionsCategory: Historyবেদকে শ্রুতি বলা হয় কেন ?
GFL eSTUDY Staff asked 3 months ago
1 Answers
GFL eSTUDY Staff answered 3 months ago

বেদ শব্দটি বিদ বা জ্ঞান শব্দ থেকে এসেছে। আর্যদের প্রাচীনতম সাহিত্য হল বেদ। পৃথিবীর প্রাচীনতম সাহিত্য হল ঋগবেদ। বেদ সংস্কৃত ভাষায় রচিত হয়। বেদকে অপৌরুষেয় বা ঈশ্বরের বাণী বলে ধর্মপ্রাণ হিন্দুরা মনে করে। ঈশ্বরের কাছ থেকে বেদের বাণী শুনে সেই বাণী ঋষিরা মনে রাখত। শুনে শুনে বেদকে মনে রাখা হত বলে এর আরেক নাম শ্রুতি। বংশপরম্পরায় মুখস্থ করে বেদকে স্মরণে রাখা হত। তাই বেদের আরেক নাম স্মৃতি। বেদের সংখ্যা চার। বেদ ও বেদাঙ্গ নিয়ে বৈদিক সাহিত্য সৃষ্টি হয়। চারটি বেদ হল ঋক্, সাম, যজু এবং অথর্ব। চারটি বেদের মধ্যে ঋগবেদ হল সর্বপ্রাচীন। ম্যাক্সমুলারের মতে ঋগবেদের রচনাকাল ছিল সম্ভবতঃ খ্রি. ১২০০-৫০০। তবে বিভিন্ন সাক্ষ্য প্রমাণ থেকে পণ্ডিতরা অনুমান করেন যে ১৫০০-১০০০ খ্রি.পূর মধ্যে ঋগবেদ রচনা করা হয়। সাম, যজু, অথর্ব ঋগবেদের অনেক পরে রচিত হয়।

Your Answer