ঋকবেদের রাজা কে ছিলেন ?

QuestionsCategory: Historyঋকবেদের রাজা কে ছিলেন ?
GFL eSTUDY Staff asked 3 months ago
1 Answers
GFL eSTUDY Staff answered 3 months ago

রােমিলা থাপারের মতে ঋগবেদের যুগে রাজারা ছিল প্রধানত যােদ্ধাদের নেতা। নিরন্তর যুদ্ধবিগ্রহের জন্য এবং গােষ্ঠীদের উপজাতির মধ্যে শৃঙ্খলা রাখার জন্য রাজপদের উদ্ভব হয়। রাজা বংশানুক্রমিকভাবে ক্ষমতা ভােগ করতেন। ক্রমে ক্রমে রাজা নিজেকে ঐশ্বরিক ক্ষমতার অধিকারী বলে দাবি করেন। অভিষেক প্রথার দ্বারা রাজাকে সাধারণ মানুষ থেকে স্বতন্ত্র এবং স্বর্গীয় অধিকারযুক্ত বলে ঘােষণা করা হয়, পুরােহিত রাজার অভিষেক করতেন। রাজা সার্বভৌম অধিকার রক্ষার জন্য জনসমর্থন লাভের কথাও বলা হয়েছে।
ঋগবেদের যুগে রাজপদ বংশানুক্রমিক হলেও নির্বাচিত রাজতন্ত্রের কথা জানা যায়। বিশ বা গােষ্ঠী দরকার হলে রাজাকে নির্বাচন করতেন। এই যুগে প্রজাতন্ত্রও ছিল। কতকগুলি গােষ্ঠী বা উপজাতি তাদের শাসনকর্তা নির্বাচন করত। এটি খাটি প্রজাতন্ত্র না হলেও নির্বাচিত অভিজাততন্ত্র ছিল একথা বলা যায়।
এই যুগে রাজার প্রধান কাজ ছিল শত্রুর হাত থেকে দেশ রক্ষা, প্রজাদের জীবন ও সম্পত্তি রক্ষা এবং আইনশৃঙ্খলা রক্ষা করা। পুরােহিতের সাহায্যে রাজাকে প্রজাদের আবেদনের ন্যায়বিচার করতে হত, দোষিকে শাস্তি দিতে হত। এই যুগে গােধন অপহরণ, বলপূর্বক জমি ও সম্পত্তি দখলের চেষ্টা হত। রাজাকে এ সকল অন্যায়ের প্রতিকার করতে হত। রাজা বলি’নামে একপ্রকার অনিয়মিত কর পেতেন প্রজাদের থেকে। কোনাে নিয়মিত কর তিনি পেতেন না। তিনি ভূমি দান করতে পারতেন না। কারণ তিনি জমির মালিক ছিলেন না।
শাসন করার জন্য রাষ্ট্রকে কয়েকটি স্তরে ভাগ করা হত। কয়েকটি পরিবার নিয়ে গােষ্ঠী গঠিত হত। কয়েকটি গােষ্ঠী নিয়ে গ্রাম। কয়েকটি গ্রাম নিয়ে বিশ বা জন গঠিত হত। কয়েকটি জন নিয়ে দেশ বা রাষ্ট্র গঠিত হত। গ্রামণি গ্রামের শাসন করত, বিশপতি বিশ এবং গােপ জনের শাসন করত। তবে বিশ ও জনের সম্পর্ক সঠিকভাবে জানা যায় না। পুরােহিত রাজার খুবই ঘনিষ্ঠ কর্মচারী ছিলেন। যাগযজ্ঞ ও ধর্মীয় ব্যাপারে পুরােহিত ছিলেন সর্বেসর্বা। পুরােহিত রাজাকে রাজনৈতিক ও কূটনৈতিক পরামর্শদান করতেন এবং যুদ্ধক্ষেত্রেও যেতেন রাজার সঙ্গে। সেনানী যুদ্ধ বিগ্রহের দায়িত্ব পালন করত। দূত ও গুপ্তচর শত্রুর খবর রাখত। এইযুগে পদাতিক ও রথারােহী সেনা ছিল। তীর, ধনুক, বল্লম, কুঠার ইত্যাদি অস্ত্র ব্যবহার করা হত। রথমুষল নামে একপ্রকার ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবহৃত হত। এছাড়া পরচরিষু বা ছুটন্ত দুর্গের কথা বলা হয়েছে যা থেকে তীর ছোঁড়া হত।

Your Answer