Ancient Indian History

Ancient Indian History

Post Gupta period Indian History in Bengali

উত্তর ভারতে আঞ্চলিক শক্তির বিকাশ

উত্তর ভারতে আঞ্চলিক শক্তির বিকাশ (Post Gupta Period) Short Notes on Post Gupta Period (উত্তর ভারতে আঞ্চলিক শক্তির বিকাশ) গুপ্ত সাম্রাজ্যের শেষ দিকে উপযুক্ত উত্তরাধিকারীদের দুর্বলতার সুযোগে হূন নেতা তোরমান ভারতের উপর আক্রমণ হানেন। পাঞ্জাব, রাজপুতানা ও পূর্ব মালবে তাদের আধিপত্য প্রতিষ্ঠিত হয়। অবশ্য এই আধিপত্য বেশিদিন স্থায়ী হয় নি। তিনি শেষ বয়স-এ জৈন ধর্ম …

উত্তর ভারতে আঞ্চলিক শক্তির বিকাশ Read More »

Mauryan empire Indian History in Bengali

মৌর্য বংশের উত্থান ও পতন

মৌর্য বংশের উত্থান ও পতন (Mauryan Empire) চন্দ্রগুপ্ত মৌর্য ও চন্দ্রগুপ্ত মৌর্য ২৫ বছর বয়সে নন্দ সম্রাট ধননন্দকে সিংহাসনচ্যুত করে পাটলিপুত্র দখল করেন ৩২১ খ্রিস্ট পূর্বাব্দে। এই কাজে তাকে সাহায্য করেন কৌটিল্য বা চাণক্য বা বিষ্ণুগুপ্ত। ৩১২ খ্রিস্ট পূর্বাব্দে তার সাম্রাজ্য নর্মদা নদী পর্যন্ত বিস্তৃত হয়।    ৩০৫ খ্রিস্টপূর্বাব্দে আলেকজান্ডারের সেনাপতি সেলুকাস নিকাটোর-এর সঙ্গে তার …

মৌর্য বংশের উত্থান ও পতন Read More »

Rise and growth of Magadha empire Indian History in Bengali

মগধের উত্থান

মগধের উত্থান (Rise and Growth of Magadha Empire) মগধ মগধ ছিল বর্তমান গয়া ও পাটনা জেলা নিয়ে গঠিত। এর আদি রাজধানী ছিল রাজগৃহ বা রাজগীর বা গিরিব্রজ। মগধের মধ্য দিয়েও গঙ্গা প্রবাহিত ছিল। বৌদ্ধ সাহিত্যের মধ্যে খ্রিস্ট পূর্ব ষষ্ঠ শতকে মগধে হর্ষঙ্ক বংশ রাজত্ব করে। শেষ পর্যন্ত মগধকে কেন্দ্র করে এক সর্বভারতীয় সাম্রাজ্য গড়ে ওঠে। মগধের উত্থানের কারণ খ্রিস্টপূর্ব …

মগধের উত্থান Read More »

16 Mahajanapada Indian Histor in Bengali

ষোড়শ মহাজনপদ

ষোড়শ মহাজনপদ (16 Mahajanapada) প্রাক মৌর্য সময় খ্রিস্ট পূর্ব ষষ্ঠ শতকে ভারতে কোনাে কেন্দ্রীয় রাজশক্তি ছিল না। ভারতে কোনাে অখণ্ড সর্বভারতীয় রাষ্ট্র এযুগে ছিল না। একটা অখণ্ড রাষ্ট্রের পরিবর্তে ছিল যােলটি রাজ্য বা যােড়শ মহাজনপদ। পাণিনির রচনা থেকে জানা যায় এই সময় উত্তরভারতে ৩০টি জনপদ বা রাজ্য ছিল। বৌদ্ধধর্মগ্রন্থ অনুসারে কোনাে ক্ষুদ্র রাজ্যের নাম না …

ষোড়শ মহাজনপদ Read More »

Vedic civilization Indian History in Bengali

বৈদিক সভ্যতা

বৈদিক সভ্যতা (Vedic Civilization) আর্য ও বৈদিক সভ্যতা আর্যদের আদি বাসভূমি সাধারণভাবে ‘আর্য’ বলতে একটা জাতিকে বােঝায়। বর্তমানে এই ধারণা পরিত্যক্ত হয়েছে। আর্য’ শব্দটি বহু অর্থে ব্যবহৃত হয়ে থাকে। সংস্কৃত অর্থ অনুযায়ী আর্য’ বলতে সদ্বংশজাত ব্যক্তিকে বােঝায়। আর্য’ শব্দটি জাতি’অর্থে পারস্য সম্রাট দরায়ুসও গ্রহণ করে ভুল করেছিলেন। প্রকৃত অর্থে আর্য কোনাে জাতির নাম নয়। ম্যাক্সমুলার, স্যার উইলিয়াম জোন্স প্রমুখ পণ্ডিতদের মতে ‘আর্য’ …

বৈদিক সভ্যতা Read More »