বংশগতি বিদ্যা কাকে বলে ?

বংশগতি বিদ্যা বা জেনেটিক্স কাকে বলে ?
What is Genetics ?

বংশগতি বিদ্যার সংজ্ঞা :-
গ্রেগর জোহান মেণ্ডেলকে (Gregor Johann Mendel, 1822-1884) প্রজনন বিদ্যার জনক বলা হয়। তিনিই প্রথম বংশগতির নিয়ম ও সূত্রগুলির আবিষ্কার, বিশ্লেষণ ও প্রবর্তন করেন। তিনি প্রথম (1866) বংশপরম্পরায় বংশগতির গুণাবলীর সঞ্চারণ ও প্রকাশনের অন্তর্নিহিত কার্যকারণের সুচিন্তিত সুস্পষ্ট ব্যাখ্যা করেন। তাঁহার পরীক্ষার ফলাফল, বিশ্লেষণ ও সূত্রগুলি একত্রে মেন্ডেলতত্ত্ব বা মেণ্ডেলিজম (Mendelism) নামে খ্যাত। সুপ্রজননবিদ্যার ইহাই প্রাথমিক স্তর।
   
   মেণ্ডেলের আবিষ্কৃত তত্ত্ব ব্রুনের একটি স্বল্পপ্রচারিত বিজ্ঞান পত্রিকায় প্রকাশিত হইয়াছিল। প্রায় পয়ত্রিশ বছর ধরিয়া তাঁহার আবিষ্কৃত তত্ত্ব (1900 খ্রীষ্টাব্দ পর্যন্ত) অপ্রচলিত এবং অবহেলিত ছিল। কিন্তু 1900 খ্রীষ্টাব্দে ইউরােপের তিন দেশের তিনজন উদ্ভিদবিজ্ঞানী হল্যাণ্ডের ডি. ভিস (De Vries), জার্মানির কোরেন্স (Correns) এবং অস্ট্রিয়ার সারমাক (Tschermak) পৃথক পৃথকভাবে উদ্ভিদের বংশগতির গতি-প্রকৃতি পরীক্ষা করিতে গিয়ে মেণ্ডেলের আবিস্কৃত সূত্রের সত্যতা উপলব্ধি করেন। প্রকৃতপক্ষে এই সময় হইতে সুপ্রজননবিদ্যা নতুন ধারায় প্রবাহিত হয়।

 
   1875 খ্ৰীঃ স্ট্রাসবার্গার (Strasburger) সর্বপ্রথম নিউক্লিয়াসের মধ্যে ক্রোমােজোমের অবস্থান লক্ষ্য করেন এবং তখন হইতে সুপ্রজনন-বিদ্যা এক নতুন আকার নিতে থাকে। 1902 খ্ৰীঃ সাটন (Sutton) কর্তৃক প্রবর্তিত “বংশগতিবিদ্যায় ক্রোমােজোমীয়” তত্ত্ব বংশগতিবিদ্যায় এক নতন দিগন্তের উন্মেষ ঘটায়। মরগ্যান (T. H. Morgan) 1911 খ্রীষ্টাব্দে লিংকেজ ও বংশগতি সম্বন্ধে উলেখযোগ্য তথ্য পরিবেশন করেন এবং 1933 খ্রীষ্টাব্দে নােবেল পুরস্কার লাভ করেন। এইচ. জে মুলার (H. J. Muller) জিনের উপর রঞ্জনরশ্মির (X-Ray) প্রভাব (1927) এবং বংশগতিতে উহার তাৎপর্য আবিষ্কার করার জন্য 1946 খ্রীষ্টাব্দে নােবেল পুরস্কার লাভ করেন। বিডল, ট্যাটাম এবং লেডারগ (Beadle, Tatum and Lederberg) 1941 খ্রীষ্টাব্দে জিনের জৈব রাসায়নিক প্রকৃতি আবিষ্কার করার জন্য 1958 খ্রীষ্টাব্দে নােবেল পুরস্কার লাভ করেন। 1953 খ্রীষ্টাব্দে ওয়াটসন, ক্রিক এবং উইলকিন্স (Watson, Crick and Wilkins) কর্তৃক আবিস্কৃত DNA অণুর ডাবল হেলিক্স বা দ্বিতী মডেল (Double helix model) সুপ্রজনন বিদ্যায় একটি উল্লেখযােগ্য সংযােজন। 1962 খ্রীষ্টাব্দে উহারা নােবেল পুরস্কার লাভ করেন। 1968 খ্রীষ্টাব্দে নিরেনবাগ (Nirenberg) এবং ভারতীয় বিজ্ঞানী ডঃ হরগােবিন্দ খােরানা (Dr. Hargobind Khorana) কোষের বাইরে জিনসংশ্লেষ করে 1968 খ্রীষ্টাব্দে নােবেল পুরস্কার লাভ করেন।

More Biology Question Answer in Bengali

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

3 × 1 =